২৫শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪২ হিজরি

[gtranslate]

শিরোনামঃ-

রিজার্ভ চুরিতে সুইফট দায়ী: ফরাসউদ্দিন

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : মে ১৬ ২০১৬, ০০:৩০ | 653 বার পঠিত

reserveবাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে চুরি হওয়া অর্থের জন্য সুইফটকে দায়ী করলেন সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন।

রিজার্ভ চুরির ঘটনায় সরকার গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান হিসেবে তিনি বলেছেন, সুইফট আরটিজিএফের সঙ্গে সংযোগ দেওয়ার ফলে এটি ঘটেছে। সুইফট নিজেই তাদের সার্ভার ২৪ ঘণ্টা চালু রাখার ব্যবস্থা করেছিল। এতে এই অর্থ চুরি হয়ে গেছে।

রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে ড. ফরাসউদ্দিন এ কথা বলেন।

প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে তিনি এসব কথা বলেন।

সম্প্রতি নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ ব্যাংকে সুইফট মেসেজিং প্ল্যাটফরমের সঙ্গে ‘রিয়েল টাইম গ্রস সেটেলমেন্ট সিস্টেম (আরটিজিএফ)’ যুক্ত করার সময় নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য যে প্রক্রিয়াগুলো অনুসরণ করার কথা সুইফট ঠিক করে দিয়েছে, তাদের টেকনিশিয়ানরাই তা করেননি।

আর এ কারণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সুইফট মেসেজিং প্ল্যাটফরমে প্রবেশ করার সুযোগ অনেক বেড়ে যায়। এমনকি সহজ একটি পাসওয়ার্ড দিয়ে রিমোট একসেসের (অন্য একটি কমপিউটার থেকে) মাধ্যমেও ওই প্ল্যাটফরমে ঢোকার সুযোগ থেকে যায়।

বাংলাদেশের তদন্তকারীদের দাবি, বাংলাদেশ ব্যাংকের ওই প্ল্যাটফরমের সাইবার নিরাপত্তার জন্য কোনো ফায়ারওয়াল ছিল না। ব্যবহার করা হচ্ছিল সাধারণ সুইচ। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘দুর্বলতাগুলো খুঁজে দেখা সুইফটের দায়িত্ব ছিল, কেননা তারাই ওই সিস্টেম বসিয়ে দিয়ে গেছে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, তারা তা করেনি।’

তবে এর আগে সুইফট কর্মকর্তারা তাদের দায় অস্বীকার করেছেন। অন্যদিকে মার্কিন তদন্ত সংস্থা এফবিআই বলেছে, রিজার্ভ চুরিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারাও জড়িত ছিলেন।

ফরাসউদ্দিন আরো বলেন, দুটি দেশের হ্যাকাররা রিজার্ভ চুরির জন্য বিশেষ একটি ম্যালওয়্যার তৈরি করেছে বলে আমরা জেনেছি। এর মাধ্যমে এই অর্থ চুরি করা সম্ভব হয়েছে।

এই ক্ষেত্রে ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্ক (ফেড নিউইয়র্ক) দায়িত্বশীল আচরণ করেনি বলেও অভিযোগ করেন তিনি। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের অসতর্কতা, অসাবধানতা, অজ্ঞতা ও দায়িত্বহীনতাকেও দায়ী করেছেন সাবেক গভর্নর।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে সঞ্চিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়, যেটাকে বলা হচ্ছে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ব্যাংক চুরির ঘটনা।

তবে চুরি হওয়া রিজার্ভের সোয়া ৫ কোটি ডলার উদ্ধার করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন ফরাসউদ্দিন।

তিনি বলেন, রিজার্ভ চুরির টাকা উদ্ধারে সরকার, ব্যাংক, কূটনীতিক ও রাজনীতিক ব্যক্তিদের এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করলে তা উদ্ধার করা সম্ভব।

গত ১৫ মার্চ ফরাসউদ্দিনকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিকে এক মাসের মধ্যে অন্তর্বর্তীকালীন প্রতিবেদন দিতে বলা হয়। সেই অনুযায়ী কমিটি গত ২০ এপ্রিল অন্তর্বর্তীকালীন প্রতিবেদন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের কাছে জমা দিয়েছে। ৭৫ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন জমা দেবে কমিটি।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4157095আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 12এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET