৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৯শে রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

[gtranslate]

শিরোনামঃ-

রাজশাহী সিটি ভবনে আবারও কর্মচারিদের তালা

হুমায়ন আরাফাত, আশুলিয়া করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : জুলাই ০৯ ২০১৭, ২২:০৯ | 629 বার পঠিত

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের বিক্ষুব্ধ কর্মচারীরা বেতন-ভাতা বৃদ্ধিসহ বেশকিছু দাবি নিয়ে আন্দোলন শুরু করেছেন। তারা বেতন বৃদ্ধিসহ ১১ দফা দাবিতে গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে আবারো রাসিক ভবনের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে ভবন ঘেরাও করে রাখে। এতে করে কোনো কর্মচারী সকাল থেকে ভিতরে ঢুকতে পারেননি। এর আগে কর্মচারিরা তাদের দাবি নিয়ে ১২ জুন মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। এবং ওই মানববন্ধনের পর গত ১৯ জুন তালা দিয়ে কর্মবিরতি কর্মসূচিও পালন করা হয়েছিল। ওই দিন আন্দোলনরত কর্মচারিরা ঘোষণা দিয়েছিলেন, দাবি আদায় না হলে ৯ জুলাই থেকে লাগাতার কর্মবিরতি পালন করা হবে। ফলে রোববার সকাল থেকে তারা সেই কর্মসূচি শুরু করেছেন। আন্দোলনের অংশ হিসেবে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নগর ভবনের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন সিটি করপোরেশনের দৈনিক মজুরিভিত্তিক শ্রমিকরা। এরপর তারা নগর ভবনের সামনের সড়কে বসে বিক্ষোভ করেছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সেখানে বিপুলসংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। তবে সিটি মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল নগর ভবনে নেই। নিজ দফতরের কাজে মেয়র বুলবুল বর্তমানে ঢাকায় রয়েছেন। রাসিক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি দুলাল শেখ বলেন, গেল বছরের ২৪ মে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক পরিপত্রে সিটি করপোরেশনের দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে নিয়োগপ্রাপ্ত দক্ষ নিয়মিত কর্মচারিদের দৈনিক ৫০০ টাকা এবং অদক্ষ অনিয়মিত কর্মচারীদের প্রতিদিন ৪৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু গেল এক বছরেও করপোরেশন কর্মচারিদের দৈনিক মজুরি বাড়ায়নি। অন্য সিটি করপোরেশনে সরকারি নিয়মে বেতন দেয়া হলেও রাসিকে ৩৩০ টাকা করে দেওয়া হয়। এতে রাসিকের ২ হাজার ২০০ জন কর্মচারি সরকারি নিয়মে তাদের মজুরি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এতে তারা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তাই ১১ দাফা দাবিতে কর্মসূচি শুরু করেছেন তারা। এ আন্দোলন বেলা ৩টা পর্যন্ত চলবে। দাবি মানা না হলে আগামিতেও আন্দোলন চলবে বলে জানান তিনি। কর্মচারিদের দাবির মধ্যে উল্লেখযোগ্য দৈনিক মজুরী ভিত্তিক কর্মচারীদের অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের পরিপত্র অনুযায়ী মজুরি বৃদ্ধি, স্থায়ী কর্মচারীদের জ্যোষ্ঠতার ভিত্তিতে পদোন্নতি প্রদান, স্থায়ী কর্মচারীদের গৃহ নির্মাণের ব্যাংক লোনের ব্যবস্থা, মৃত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের পোষ্যদের চাকুরি প্রদান, মৃত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের অবসরকালীন ভাতা সম্পন্নরুপে প্রদান, স্থায়ী কর্মচারীদের বদলি, সকোজ ও সাসপেন্ড বন্ধ এবং বরখাস্তকৃতদের চাকুরিতে পুনর্বহাল, সাংগঠনিক কাঠামো সংশোধন পূর্বক নিয়োগের ব্যবস্থা, মজুরী ভিত্তিক কর্মচারীদের চাকুরি স্থায়ী, কল্যাণ তহবিল বাস্তবায়নে চুড়ান্ত অনুমোদন এবং স্থায়ী কর্মচারীদের পোষাক, জুতা ও ছাতা সকলবকেয়া পাওনা পরিশোধ করতে হবে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4226934আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 13এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET