২৫শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪২ হিজরি

[gtranslate]

শিরোনামঃ-

বিশ্বে সর্বোচ্চ মূল্যের সাত ঘড়ি

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : মে ২২ ২০১৬, ০০:০১ | 743 বার পঠিত

 লাইফস্টাইল ডেস্ক- সময়কে সঠিক নির্দেশনা দেয়ার যন্ত্র ঘড়ি। ঘড়ি আবিষ্কারের ইতিহাস-সূর্যঘড়ি, এটি প্রথম যান্ত্রিক ঘড়ি। আনুমানিক সাড়ে পাঁচ হাজার বছর আগে মিশর ও ব্যাবিলনে এর উৎপত্তি। এটি আজও টিকে আছে। সেকেন্ড ও মিনিটের কাঁটা নেই, নেই কোনো টিকটিক শব্দ। তবে সময় দেয় একদম নিখুঁতভাবে। গোলাকার চাকতিতে একটি নির্দেশক কাঁটা ও দাগ কাটা সময়ের ঘর, এ নিয়েই সূর্যঘড়ি।

সময়ের পরিবর্তনে সে ঘড়ি অর্জন করেছে ঐতিহ্য, সৌখিনতা আর অতিপ্রয়োজনের সম্মান। আজ শুধু সময় দেখার জন্য নয়, ফ্যাশন আর সৌখিনতায় তার উপস্থিতি অধিকতর স্পষ্ট। সৌন্দর্য ও উপযোগীতার ভিত্তিতে ঘড়ির মূল্যমানও নির্ধারণ হয় নানাভাবে। কোনো কোনো ঘড়ি অর্জন করে নিয়েছে বিশ্বে সর্বোচ্চ মূল্যের সম্মান। ছোট্ট এই যত্নটির দাম কতো হতে পারে তা হয়তো আমাদের অনেকের ধারণাতেও নেই। আসুন দেখে নেয়া যাক বিশ্বের সর্বোচ্চ মূল্যের সাত ঘড়ি।

দ্য রজার ডিউবুইস এক্সক্যালিবার কোয়াটুর

দ্য রজার ডিউবুইস এক্সক্যালিবার কোয়াটুর ঘড়িটির মূল্য এক দশমিক এক মিলিয়ন ডলার। এ ঘড়িটি নির্মাণে সাত বছর ধরে গবেষণা করতে হয়। এটি প্রতি সেকেন্ডে চারবার পালস ব্যালেন্স করে। ফলে ঘড়ির টিক টিক শব্দের বদলে এটি থেকে মোটরের শব্দই শোনা যায়। সুইস এ ঘড়ি বিশ্বে মাত্র তিনটি নির্মিত হয়েছে।

জায়গের-লেকোউল্টেস হাইব্রিস মেকানিকা

দেড় মিলিয়ন ডলার মূল্যের সুইস ঘড়ি জায়গের-লেকোউল্টেস হাইব্রিস মেকানিকাতে ১,৪৭২টি খণ্ড রয়েছে। এটি বিশ্বের সবচেয়ে জটিল ঘড়ি হিসেবে পরিচিত। এতে রয়েছে ক্যালেন্ডার ও ফ্লাইং টার্বিলন। ঘড়িটি বানাতে পাঁচ বছর সময় লেগেছে।

দ্য গ্রিউবেল ফরসে আর্ট পিস ১ ওয়াচ

এক থেকে দুই মিলিয়ন ডলার মূল্যের সুইস ঘড়ি দ্য গ্রিউবেল ফরসে আর্ট পিস ১ ওয়াচে রয়েছে স্যাফিয়ারের বহিরাবরণ। এটি ব্রিটিশ শিল্পী উইলার্ড উইগানের সূক্ষ্ম চিত্র সমৃদ্ধ। দ্য গ্রিউবেল ফরসে আর্ট পিস ১ ওয়াচ চিনতে আপনাকে অবশ্যই চিত্রটি দেখে নিতে হবে।

রিচার্ড মাইল’স টুরবিলন আরএম ৫৬-০২ স্যাফিয়ার ওয়াচ

জটিল এ ঘড়িটির খুচরা বিক্রয়মূল্য দুই মিলিয়ন ডলার। এতে রয়েছে সলিড স্যাফায়ারের স্বচ্ছ বহিরাবরণ। এছাড়া ঘড়িটি স্ক্র্যাচ ও পানি প্রতিরোধী। এ মডেলের ঘড়ি এযাবৎ মাত্র ১০টি নির্মিত হয়েছে।

এ. ল্যাংজ অ্যান্ড সহনি’স গ্র্যান্ড কমপ্লিকেশন টাইমপিস

প্রায় দুই মিলিয়ন ডলার মূল্যের এ. ল্যাংজ অ্যান্ড সহনি’স গ্র্যান্ড কমপ্লিকেশন টাইমপিস ঘড়িটিতে রয়েছে ৮৭৬টি যন্ত্রাংশ। এক বছর ধরে এটি নির্মাণ করতে হয়েছে। এ মডেলের ঘড়ি বিশ্বে মাত্র একটিই রয়েছে।

প্যাটেক ফিলিস দ্য গ্র্যান্ডমাস্টার চাইম ওয়াচ

প্যাটেক ফিলিস দ্য গ্র্যান্ডমাস্টার চাইম ওয়াচটি ২.৬ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ের নির্মিত হয়েছে। সুইস ঘড়ি নির্মাতার ১৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এটা তৈরি করা হয়। এতে দুটি ডায়াল ও ২১৪টি যন্ত্রাংশ রয়েছে। আট বছর ধরে এক লাখ ঘণ্টা কর্মশক্তি (ম্যান আওয়ার) ব্যয় করে ঘড়িটি নির্মিত হয়েছে।

দ্য গ্র্যাফট ডায়মন্ডস হ্যালুসিনেশন ওয়াচ

৫৫ মিলিয়ন ডলার মূল্যের দ্য গ্র্যাফট ডায়মন্ডস হ্যালুসিনেশন ওয়াচ মূলত একটি গহনা বিশেষ। সবচেয়ে দামি ঘড়ির তালিকায় এটি একমাত্র লেডিস ঘড়ি। ঘড়ির ব্যবসায় নতুন নামা গ্র্যাফট জুয়েলারির নতুন ঘড়ি এটি। অনেকটা ব্রেসলেটের মতোই এ ঘড়িটিতে রয়েছে অসংখ্য ডায়মন্ড ও প্ল্যাটিনাম খণ্ডের সমাহার।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4157855আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 20এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET