৩রা আগস্ট, ২০২০ ইং, সোমবার, ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • দেশজুড়ে
  • বাগমারায় ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগে লিখিত অভিযোগ

বাগমারায় ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগে লিখিত অভিযোগ

নাজিম হাসান, রাজশাহী করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : জুলাই ৩০ ২০২০, ২১:৫৩ | 624 বার পঠিত

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার পীরগঞ্জ টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেজ ম্যানেজমেন্ট কলেজে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। কলেজের সিনিয়র প্রভাষককে বাদ দিয়ে একজন জুনিয়র প্রভাষককে ওই পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন একই কলেজরে সিনিয়র প্রভাষক আব্দুর রউফ মন্ডল। গত সোমবার তিনি সুবিচার প্রার্থনা করে কলেজের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বিগত ২০১৬ সালের ৫ জুন ওই কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ সামসুল হকের মৃত্যুতে অধ্যক্ষ পদ শূন্য হয়ে পড়ে। পরে ওই পদে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পান একই কলেজের প্রভাষক আব্দুল আজিজ। বেশ কিছু দিন তিনি ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেন। পরে আব্দুল আজিজ ভ’য়া সনদে চাবুরি করছেন মর্মে আদালতে মামলা দায়ের ও প্রমানিত হওয়ায় তার এমপিও স্থগিত হয়ে যায়। এ পর্যায়ে আবার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের পদ শূন্য হওয়ায় মেয়াদ উত্তীর্ন এডহক কমিটি সসম্পূর্ন বেআইনী ভাবে কলেজের সিনিয়র প্রভাষক আব্দুর রউফ মন্ডলকে বাদ দিয়ে তার চেয়ে আট বছরের জুনিয়র প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমান মুকুলকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হিসাবে নিয়োগ দেয় বিতর্কিত এডহক কমিটি। সিনিয়র প্রভাষক আব্দুর রউফ মন্ডলের অভিযোগ কারিগরি শিক্ষ বোর্ডের সকল বিধি বিধান অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হিসাবে আমিই নিয়োগ পাই। কিন্তু কলেজের সাবেক সভাপতি জাতীয় পার্টির নেতা মোজাম্মেল হক মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে জুনিয়র প্রভাষক ও উপজেলা জামায়াতের একজন সক্রিয় কর্মী মোস্তাফিজুর রহমান মুকুলকে নিয়োগ দেওয়ার জন্য মেয়াদ উত্তীর্ন এডহক কমিটির সদস্যদের উপর প্রভাব বিস্তার করেন। এবং তাদেরকে ম্যানেজ করেন। আব্দুর রউফ মন্ডল নিজেকে আওয়ামী পরিবারের সন্তান ও ভবানীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সহসভাপতি বলে দাবী করে বলেন, কারিগরি কলেজের বিধি মোতাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ প্রাপ্ত ব্যক্তি প্রিভিয়াস মার্ষ্টাস পাশ হলে তাকে মাষ্টার্সে প্রথম বিভাগ পেতে হবে। অথচ মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল শান্ত মারিয়াম প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাষ্টার্স পাশ করা এবং তার জিপিএ স্কোর মাত্র ২.৬৯। যোগ্য এবং সিনিয়র প্রভাষককে বাদ দিয়ে একজন অযোগ্য ও জামায়াত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ওই পদে নিয়োগ পাওয়ায় অন্যান্য শিক্ষকদের মাঝেও সৃষ্টি হয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এই কলেজে এর আগে দুই জন শিক্ষকের সনদ জালিয়াতির বিষয়টি আদালতে প্রমানিক হওয়ায় কলেজেটির প্রতি এলাকার শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহলের আস্থা শূণ্যের কোঠায় নেমে এসেছে। এখন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগে জালিয়াতির আশ্রয় নেওয়ায় কলেজের শিক্ষ ব্যবস্থা একেবারে ভেঙ্গে পড়ার উপক্রম হয়েছে। এলাকার শিক্ষা সচেতন মহল কলেজের এসব গুরুতর অনিয়ম দূর করে কলেজটিতে শিক্ষর পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। তবে এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও প্রতিষ্ঠানের সভাপতি শরিফ আহম্মেদ বলছেন,কলেজের চলমান সংকট দূর করার জন্য তাদের (এডহক কমিটি) সাথে একাধিক বার মিটিং করেছি। কমিটির সদস্যরা সিনিয়রিটি হিসাবে আব্দুর রউফ মন্ডলকে মেনে নিতে চাচ্ছে না।#

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 3999275আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 1এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET