২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

[gtranslate]

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • সকল সংবাদ
  • বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে প্রশাসন ও দলীয় ছত্রছাঁয়ায় অবাধে চলছে বালু উত্তোলণ, হুমকির মুখে রাষ্ট্রীয় সম্পদ, দেখার কেউ নেই!

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে প্রশাসন ও দলীয় ছত্রছাঁয়ায় অবাধে চলছে বালু উত্তোলণ, হুমকির মুখে রাষ্ট্রীয় সম্পদ, দেখার কেউ নেই!

হুমায়ন আরাফাত, আশুলিয়া করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : জুন ০২ ২০১৭, ১১:১২ | 610 বার পঠিত

বিশেষ প্রতিনিধি:

বগুড়ার সারিয়াকান্দির বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে বালু উত্তোলণকারীরা ইউনিয়ন, থানা-উপজেলা প্রশাসন ও দলীয় নেতাকর্মীদের ম্যানেজ করে (কব্জায় এনে) দীর্ঘদিন থেকে নদীর গভীর তলদেশ থেকে একটি চক্র বালু উত্তোলণ করে আসার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, প্রশাসন কর্তৃক ও দলীয় উদ্যোগে বালু উত্তোলণ বন্ধ করার কোন কার্যকরি উদ্যোগ না থাকায় লক্ষ-লক্ষ বিঘা আবাদী জমি বা রাষ্ট্রীয় ভুমি সম্পদ হুমকির পাশাপাশি সরকারি অর্থ (জিও ব্যাগ) বিনষ্ট হচ্ছে! পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়মানুযায়ী নদীর তীর থেকে ২ হাজার ৫’শ ফুট মাঝ থেকে বালু উউত্তোলণের কথা থাকলেও এসব নিয়মনিতীর তোয়াক্কা করছে না কেউ! সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সারিয়াকান্দি পৌর এলাকার বাড়ইপাড়া গ্রামের শাহাদত জামানের ছেলে মো: তানভির আহম্মেদ বিপ্লব ও হিন্দুকান্দি গ্রামের মৃত আছর উদ্দিনের পুত্র হাজী ইলিয়াছ উদ্দিন বিগত ৩ মাস যাবৎ হিদুকান্দিস্থ্য বাঙালী নদী থেকে বালূ উত্তোলণ করে আসছেন। এদিকে জোড়গাছা মধ্যপাড়া গ্রামের পোকা মন্ডলের ছেলে ও ভেলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুর রাজ্জাক প্রায় দুই-তিন বছর ধরে আওয়ামী লীগ দলীয় ছত্রছাঁয়ায় জোড়গাছার বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণ করে আসছে। শুধু তাই নয়, তার এই দৈরাত্ব দেখে একই গ্রামের শামীম, মুঞ্জু, রিপনসহ একাধিক ব্যক্তি ভুমি দস্যুদের খাতায় নাম লিখিয়েছেন। বিশেষ সূত্রে জানা যায়, ইতোমধ্যে আব্দুর রাজ্জাক অবৈধ বালু উত্তোলণের টাকা দিয়ে একাধিক তলার ভীত দিয়ে ইমারত (দালান বাড়ি) নির্মাণের কাজ শুরু করেছেন। এর থেকে ভেলাবাড়ি গ্রামের সজিব, ধুনট থানার নিমগাছী ইউনিয়নের ছেলে জোড়গাছা পূর্ব পাড়া ইদ্রিসের নাতী বগুড়া জেলা যুবলীগ নেতা সুমনও বাদ পড়েনি! বালু উত্তোলণের সাথে কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, ইমরান আলী রনি জড়িত থাকার বিষয়ে গুঞ্জন শুনা যাচ্ছে। এছাড়াও কুপতলা পয়েন্ট, নারচী, কুতুবপুর, শোলারতাইড়, মথুরাপাড়া, ডোমকান্দি, সারিয়াকান্দি ফেঁরি ঘাট পয়েন্টে নদীর গভীর তলদেশ থেকে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে চলছে বালু উত্তোলণ ও অবৈধ বালুর রমরমা ব্যবসা। এতে তারা কোটিপতি হলেও ভুমিহীন হচ্ছেন এলাকার নিরহ মানুষগুলো। এই বালু উত্তোলণের ফলে যে, নদীর তীরে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হচ্ছে তাতে করে তার পাশেই নদী তীর সংরক্ষনের জন্য সংরক্ষণ করে রাখা বালু ভর্তি ম্যাটের বস্তা পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে। এখনই সারিয়াকান্দি উপজেলার অবৈধ বালু উত্তোলণ বন্ধ করা না গেলে খনন কৃত জনবশতি এলাকায় বিভিন্ন শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সহ আবাদী জমি ও আশপাশ এলাকার বিভিন্ন রকমের ক্ষতি সাধিত হতে পারে। এবিষয়ে সারিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, অফিসার ইনচার্জ (ওসি)’র সাথে কথা হলে তিনি গণমাধ্যমকে জানান, আমি সদ্য এই থানায় যোগদান করেছি। এখানে এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণের বিষয়টি আমার কানে এসেছে। বালু উত্তোলণকারীরা যাই হোক না কেন এরা দেশ ও জাতির শত্রু। এদের আইনের আওতায় এনে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এজন্য তিনি উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের স্মরণাপর্ণ হন। এদিকে ক্ষতিগ্রস্থ্যরা ইউনিয়ন, থানা-উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি স্থানীয় সংসদ সদস্য ও উর্ধতন কর্মকর্তার আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। যেন, কখনোও উপজেলার কোনো স্থান থেকে আর বালু উত্তোলণ না করা হয়।

 

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4218653আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 6এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET