১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৫ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

[gtranslate]

শিরোনামঃ-

টাঙ্গুয়ার হাওরপাড়ে পর্যটন শিল্প বিকাশের উদ্যোগ

হুমায়ন আরাফাত, আশুলিয়া করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : জুলাই ১৩ ২০১৭, ২১:৫৮ | 700 বার পঠিত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

মেঘালয় পাহাড়ের পাদদেশে রামসার সাইট অর্ন্তভুক্ত সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের টাঙ্গুয়ার হাওরে পর্যটকদের উপস্থিতি বৃদ্ধি ও পর্যটকদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন।
টাঙ্গুয়ার হাওরপাড়ে কিছু দিনের মধ্যেই ৫টি কটেজ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন এসব কটেজ নির্মাণ করবে। এছাড়া পর্যটন কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে হাওর দেখতে আসা পর্যটকদের সুবিধার জন্য ১২ জন ট্যুরিস্ট গাইড নিয়োগ করা হবে। গতকাল বুধবার দুপুরে টাঙ্গুয়ার হাওরের জীববৈচিত্র্যের বর্তমান অবস্থা যাচাই ও স্থানীয় জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক আলোচনা সভায় এসব বিষয় তুলে ধরেছেন বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের যুগ্ম সচিব মিজানুর রহমান। তাহিরপুর উপজেলা পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের যুগ্ম সচিব মিজানুর রহমান বলেন,‘ টাঙ্গুয়া হাওরে সকল জীববৈচিত্র্য রক্ষা হোক সেটাই আমরা চাই। যেখানে পর্যটন হবে এবং এলাকার মানুষের কর্মসংস্থান হবে। আপাতত ১২ জন ট্যুরিস্ট গাইড হিসাবে নিয়োগ করা হবে। কটেজ ব্যবস্থাপনা কিভাবে করতে হয় সে বিষয়েও তাদের তিন দিনের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এক বছরের মধ্যে ১০০ জন মানুষের কর্মসংস্থান হবে। তাদের  শিক্ষাগত যোগ্যতা হবে কমপক্ষে এসএসসি পাশ। কুকের শিক্ষাগত যোগ্যতা হবে ৫ম শ্রেণি পাশ। যাদের চাকুরী হবে তাদের বাড়ি অবশ্যই তাহিরপুর উপজেলায় হতে হবে।’
তিনি আরো বলেন,‘সুনামগঞ্জ জেলা হচ্ছে শিল্প-সংস্কৃতির দিক দিয়ে দেশের অন্যতম একটি জেলা। তাই সরকার টাঙ্গুয়ার হাওরকে দেশ-বিদেশের পর্যটকদের কাছে তুলে ধরার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন এবং আইইউসিএন বাংলাদেশ কান্ট্রি অফিস এর যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায় টাঙ্গুয়ার  হাওর বিষয়ক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব ন্যাচার (আইইউসিএন) বাংলাদেশ কান্ট্রি অফিসের সহকারী প্রকল্প কর্মকর্তা সেলিনা সুলতানা। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপক খালেদ বিন মজিদ, তাহিরপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন, শ্রীপুর উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান খসরুল আলম, বাদাঘাট ইউপি চেয়ারম্যানআফতাব উদ্দিন, দক্ষিণ শ্রীপুর ইউপি চেয়ারম্যান বিশ্বজিত সরকার, উত্তর বড়দল ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম, টাঙ্গুয়ার হাওর কমিউনিটি নেতা বজলু মিয়া, খসরুল আলম, ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া প্রমুখ।প্রসঙ্গত. দেশের দ্বিতীয় রামসার সাইট টাঙ্গুয়ার হাওর ২০০৩ সালে জেলা প্রশাসন দেখভালের দায়িত্ব নেয়। ২০০৬ সালের ডিসেম্বরে এর দেখভালের দায়িত্ব পায় আইইউসিএন। ২০১৬ সালের আগস্ট পর্যন্ত আইইউসিএন টাঙ্গুয়ার হাওর দেখভালের দায়িত্বে ছিল। এরপর আবার ১৬ মাসের জন্য অর্থাৎ ২০১৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত টাঙ্গুয়ার হাওর দেখভালের দায়িত্বে পায় আইইউসিএন। তবে অভিযোগ রয়েছে আইইউসিএন টাঙ্গুয়ার হাওরের উন্নয়ন-জীব বৈচিত্র রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে।
গত ১ জুলাই সুনামগঞ্জ সার্কিট হাউজে টাঙ্গুয়ার হাওর সমাজভিত্তিক টেকসই ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের মতবিনিময় সভায় প্রধানমন্ত্রী’র কার্যালয়ের প্রশাসন বিভাগের মহাপরিচালক কবির বিন আনোয়ার বলেছিলেন,‘দেশের দ্বিতীয় রামসার সাইট টাঙ্গুয়ার হাওর প্রায় ৯ বছর দেখভাল করেছে ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব ন্যাচার (আইইউসিএন)। সুনির্দিষ্টভাবে বললে- এই সময়ে হাওরের মাছ ও জীব বৈচিত্র রক্ষায় আইইউসিএন ব্যর্থ হয়েছে তবে হাওর পাড়ের মানুষ জীব-বৈচিত্রের বিষয়ে কিছুটা স^চেতন হয়েছে।’

 

 

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4216276আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 12এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET