২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

[gtranslate]

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • অপরাধ দূনীর্তি
  • ছাগলনাইয়ায় আটমাস ব্যবধানে প্রবাসীর বাসায় ফের ডাকাতদলের হানা || অভিযোগ হত্যার উদ্দেশ্য

ছাগলনাইয়ায় আটমাস ব্যবধানে প্রবাসীর বাসায় ফের ডাকাতদলের হানা || অভিযোগ হত্যার উদ্দেশ্য

নজরুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা করেসপন্ডেন্ট,ফেনী।

আপডেট টাইম : অক্টোবর ২৯ ২০২০, ১৫:৪২ | 1490 বার পঠিত

ছাগলনাইয়ায় পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড পশ্চিম ছাগলনাইয়ায় আট মাসের মাথায়  এক প্রবাসীর বাসায় দ্বিতীয় বারের মতো ডাকাতদলের হানা দেয়ার অভিযোগ পাওয়াগেছে। ঘটনাটি ঘটেছে কলেজ রোডস্থ কুয়েত প্রবাসীর আবুল কালাম ম্যানশনে। একই ভবনের দ্বিতীয় তলায় গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাত পৌনে ৪ টার সময় মুখোশধারী ডাকাতদল প্রবেশ করে এবং প্রবাসী আবুল কালামসহ তার স্ত্রী নাজমা আক্তার ও দুই কন্যাকে অস্ত্রের মূখে রেখে বাসার মালামাল লুট করে। ঐ ঘটনায় নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ মোট ১৭ লাখ ৯৬ হাজার টাকার মালামাল লুট হয়েছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন বাদি আবুল কালাম (ছাগলনাইয়া থানায় মামলা নং- ১৩ তাং- ২৯-০২-২০২০ ইং)। এ মামলার সূত্রধরে ছাগলনাইয়া থানার পুলিশ পশ্চিম ছাগলনাইয়া গ্রামের মোঃ সৌরভ হোসেন ফয়সাল (১৮) ও সাইফুল ইসলাম রিয়াজকে (১৯) গ্রেফতার করে। পরে গ্রেফতারকৃত দুই আসামী বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে এ ডাকাতির ঘটনায় নিজেদের জড়িত থাকার বিষয় স্বীকার করেছে বলে ছাগলনাইয়া থানা সূত্রে জানাগেছে।

অন্যদিকে বুধবার (২৮ অক্টোবর) দিবাগত রাত ৩ টার সময় একই ভবনের দ্বিতীয় তলায় প্রবাসী আবুল কালামের বাসার বেলকনির গ্রীলের পকেট ভেঙ্গে পুর্বের মতই বাসায় প্রবেশের চেষ্টা করে ডাকাতদল। দরজা ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকার চেষ্টাকালে বাসার লোকজন এবং আশপাশের লোকজন টের পেয়ে শোর চিৎকার করলে ডাকাতদল পালিয়ে যায়। সাথে সাথে পুলিশকে জানালে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে হাজির হয়। পর বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ। এসময় ভিকটিম আবুল কালাম ও তার স্ত্রী নাজমা আক্তার থানার ওসির নিকট মৌখিক অভিযোগে বলেন, এবার ডাকাতদল আমাদের বাসায় হামলার উদ্দেশ্যে মালামাল লুট নয় বরং আমাদের স্বপরিবারের হত্যা করাই ছিলো তাদের লক্ষ। আবুল কালামের অভিযোগ, গত ফেব্রুয়ারী মাসে ২৯ তারিখে যখন ডাকাতদল আমার বাসায় ঢুকে মালামাল লুট করে তখন তারা আমাদের হুমকি দিয়ে বলেছিলো থানা পুলিশকে জানালে পরবর্তীতে তুদের জানে মারবো। যেহেতু আমরা আগের ঘটনা পুলিশকে জানিয়েছি এবং পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করেছিলো তাদের মধ্যে কেউ এবারের ঘটনায় জড়িত। এবং এবার আমাদের হত্যা করতেই তার এসেছিলো। এছাড়াও আবুল কালাম আশঙ্কা করেন দুই যুবতী কন্যার সম্মানহানি করার লক্ষেও দুষ্কৃতিকারীরা বাসায় প্রবেশের চেষ্টা করেছে। নিজেদের সম্মান ও জানের নিরাপত্তা চাই বলে আবুল কালাম থানার ওসির নিকট হাতজোড় করে সাহায্য চায়। অন্যদিকে স্ত্রী নাজমা আক্তার ওসিকে বলেন, আগের ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করে এবং তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আদালতের মাধ্যমে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। তাদের মধ্যে একজন জামিনেও এসেছে। নাজমা আক্তারের দাবি, মালামাল লুটের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করার পর তারা স্বীকারোক্তি দিয়েছে কিন্তু আমাদের মালামাল গুলো আমরা পেলামনা কেন? মালামাল উদ্ধারের প্রক্রিয়া চলছে বলে তাতক্ষণিক ভিকটিম পরিবারকে আশ্বস্ত করেন ওসি।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4204567আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 4এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET