২১শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪২ হিজরি

[gtranslate]

শিরোনামঃ-

চাঁদপুর শহরে ভয়াবহ যানজট ভ্রাম্যমাণ বাজারের দখলে রাস্তার দু’পাশ

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : জুন ২২ ২০১৬, ২৩:৫৩ | 641 বার পঠিত

20_25000চাঁদপুর প্রতিনিধি- ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে চাঁদপুর শহরে যানজট ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে। কোনো কোনো সময় এ যানজট ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। ঈদকে সামনে রেখে এখন চাঁদপুর শহরে যানবাহনের সংখ্যাও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বৈধ-অবৈধর কোনো বালাই নেই। সবধরনের যানবাহনই চলছে। আর এসব যানবাহন নিয়ন্ত্রণে রাখতে নেই পর্যাপ্ত ট্রাফিক পুলিশও। তাছাড়া শহরের রাস্তাগুলোর দু’পাশ ভ্রাম্যমাণ বাজারের দখলে থাকে দিনরাত সবসময়। যানজটের অন্যতম কারণও এটি।

রমজান মাসের অর্ধেক শেষ হয়ে গেছে। দেখতে দেখতে ঈদুল ফিতর চলে আসছে। তাই ঈদ যতই এগিয়ে আসছে শহরে মানুষের বিচরণও ততই বাড়ছে। ঈদের কেনাকাটা বলতে গেলে শুরু হয়ে গেছে আরো আগ থেকেই। এখন বিভিন্ন মার্কেট, বিপণী বিতানসহ পোশাকাদির দোকানে প্রচ- ভিড় থাকে। আর এই ভিড়ের পরিমাণ প্রতিদিনই বাড়ছে। চাঁদপুর শহরের রেলওয়ে হকার্স মার্কেট, হাকিম প্লাজা, জেএম সেন গুপ্ত রোডস্থ পূরবী মার্কেট, মীর শপিং কমপ্লেক্স, বিউটি স্টোর, সাগরিকা, মালঞ্চ, কালীবাড়ি এলাকার ফজলু ম্যানশন এবং কুমিল্লা রোডস্থ পৌর নিউ মার্কেট, জুতার মার্কেট ও বিভিন্ন পোশাকাদির দোকানগুলো ঘিরেই মানুষের যত ভিড় থাকে। মানুষের সবধরনের কেনাকাটা শহরের এ ক’টি এলাকা ঘিরেই হয়। আবার ব্যাংকগুলোর অবস্থানও এসব এলাকায়। তাই গ্রামঞ্চলসহ শহরের আশপাশের সব এলাকার মানুষ চতুর্দিক থেকে এসব এলাকায় আসতে থাকে। সকাল ৯টার পর থেকেই মানুষের আসা শুরু হয় বিভিন্ন মার্কেটে। একনাগাড়ে অন্তত বিকেল ৩টা পর্যন্ত চলে মানুষের এই বিচরণ। এরপর যার যার বাড়ি যাওয়ার পালা শুরু হয়। আর শহরের স্থায়ী বাসিন্দারা দুপুর, বিকেল এবং রাতেই অনেকটা কেনাকাটা করে থাকে।

শহরমুখী মানুষের এই স্রোতের কারণে স্বাভাবিকভাবে যানবাহনের সংখ্যাও শহরে বেড়ে গেছে। রিক্সা, সিএনজি স্কুটার, অটোরিক্সা, প্রাইভেট গাড়িসহ নানা ধরনের যানবাহন এখন শহরমুখী। পাশাপাশি মালবাহী গাড়ির চাপও রয়েছে। আর এসব যানবাহনের বিচরণ শহরের উল্লেখিত গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলো ঘিরেই। অথচ এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোতেই রয়েছে যত বিশৃঙ্খল অবস্থা। দেখা গেছে যে, জেএম সেন গুপ্ত রোডের জোড় পুকুর পাড় এলাকা থেকে ওয়ান মিনিটের মোড় পর্যন্ত, আবার ওয়ান মিনিটের মোড় থেকে পশ্চিম দিকে চৌধুরী মসজিদ পর্যন্ত কুমিল্লা রোডের দু’পাশ এবং হকার্স মার্কেটের সামনে মুক্তিযোদ্ধা সড়কের দু’পাশ জুড়ে ভ্রাম্যমাণ বাজারের দখলে থাকে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভ্যানগাড়িতে করে কাঁচাবাজার, নানা রকমের ফল, গৃহস্থালির নানা জিনিসপত্রাদি নিয়ে রাস্তার দু’পাশ জুড়ে বাজার বসে। এ কারণে দেখা গেছে যে, রিক্সাসহ অন্যান্য যানবাহন মার্কেটে বা দোকানের সামনে থামতে হলে রাস্তার উপর গাড়িগুলোকে থামাতে হয়। আর তখনই লেগে যায় যানজট। পৌরসভা থেকে সড়কের দু’পাশের ভ্রাম্যমাণ দোকান ও হকার উচ্ছেদে বেশ ক’বার উদ্যোগ নেয়া হয়। কয়েকবার উচ্ছেদও করা হয়েছে। কিন্তু কয়েকদিন যাওয়ার পর আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসে। রমজানের আগে পৌরসভা থেকে মাইকিং করা হয় নিজ উদ্যোগে এসব ভ্রাম্যমাণ দোকান সরিয়ে ফেলার জন্যে। কিন্তু তা সরানো হয়নি। এখন চলতি রমজান এবং ঈদকে সামনে রেখে রাস্তার পাশে এই ভ্রাম্যমাণ বাজারের কারণে শহরের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় চরম বিশৃঙ্খলা ও সড়কে মারাত্মক যানজট লেগে থাকে। তাছাড়া ট্রাফিক পুলিশ স্বল্পতার কারণে শহরে ট্রাফিক ব্যবস্থাও একেবারে দুর্বল। যার কারণে শহরে যানবাহনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। শহরবাসীর দাবি, শহরে যানবাহন নিয়ন্ত্রণে রাখতে অন্তত ঈদ পর্যন্ত ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ দেয়া। তাছাড়া রাস্তার পাশ থেকে ভ্রাম্যমাণ বাজারও যেনো উচ্ছেদ করা হয়। এ ব্যাপারে পৌর মেয়র ও পুলিশ সুপারের সুদৃষ্টি কামনা করা হয়েছে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4149928আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 6এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET